Putu and Pipi

পুটু আর পিপি 

শুভ্র বন্দ্যোপাধ্যায় 

 

পিঁপড়েরা থাকে সব দল বেঁধে চাকে 

বড় ফ্ল্যাট ছোট ফ্ল্যাট মাটি থাকে থাকে 

 

একদিন দেখা গেল হাইওয়ের ধারে 

যেখানে নতুন সব বাড়ি সারে সারে 

 

সেখানে সকাল বেলা কী কাণ্ড সব 

লক্ষ লক্ষ পিঁপড়ে এসে করে কলরব 

 

সকলেই কথা বলছে দাঁড়ে দাঁড়া দিয়ে 

কেউবা এসেছে মুখে ছেঁড়া পাতা নিয়ে 

 

সব গাড়ি থেমে গেছে সব লোকজন 

কথা বলছে চুপিচুপি কী হয় কখন 

 

কেন এত পিঁপড়ে এল? কী বলতে চায়? 

 এতক্ষণ লোকেদের থেমে থাকা দায় 

 

এদিকে ততক্ষণে আরও পিঁপড়ে এসে 

দখল নিয়েছে সব রাস্তা গেছে ফেঁসে 

 

সব রাস্তা সব গলি পিঁপড়ে থই থই 

সমস্ত শহর জুড়ে মস্ত হই হই 

 

কেউ করে টেলিফোন কেউ বা চেঁচায় 

কাকেদের দল গাছে বসে মুখ খেঁচায় 

 

এমন সময় শুধু ছোট্ট একটা মেয়ে 

পুটু তার নাম, সে মাছু ভাতু খেয়ে 

 

ডেকে আনল পিপিকে তার ঘরের ভিতর  

পিপি জানে গাছ পালা পোকাদের ঘর 

পিপি শুধু বলতে পারে পিঁপড়ের খবর

 

খুব রেগে গেছে পুটু খুব রেগে গেছে 

কেন না পিঁপড়ের জন্য খেলা থেমে গেছে 

 

পিপি জানতো না কিছু কাজে ডুবে থেকে 

পুটুর ডাকেতে গেল কাজ সব কেটে 

 

রাস্তার ধারেতে গিয়ে দেখে পিপি পুটু 

শুধুই পিঁপড়ের দল চলে গুটু গুটু 

 

মাথায় হাত পিপি পুটু কী হয় কী হয় 

কেন এত পিঁপড়ে এল কী বা করতে হয় 

 

পিপি খুললো কম্পিউটার, পিপি দেখল ছবি 

পিঁপড়েদের ঘর বাড়ি সুসজ্জিত সবই 

 

একটা বাড়ি করতে গেলে কত বাড়ি ভাঙে 

জানে কি মানুষরূপী ওরাং ওটাঙে 

 

তাই বুঝি সব পিঁপড়ে রাস্তায় নেমেছে 

কেড়ে নেবে ঘরবাড়ি যা কিছু ভেঙেছে